1. info@businessstdiobd.top : admin :
রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন




কম খরচে এশিয়ার যে দেশগুলো ঘুরতে পারেন!

বিদেশ ভ্রমণ করার শখ কার না নেই। কিন্তু খরচের কথা চিন্তা করে তা হয়ে ওঠে না। আপনি যদি ভ্রমনের জন্য এশিয়ার মহাদেশ বেছে নিয়ে থাকনে তবে জেনে নিন কোন কোন দেশগুলোতে কম খরচে ভ্রমন করতে পারবেন। এ লেখায় তুলে ধরা হলো অল্প খরচে ভ্রমণের উপযোগী এশিয়ার কয়েকটি দেশ।

১. থাইল্যান্ড
বহুদিন ধরেই থাইল্যান্ডের পর্যটন স্থানগুলো বিশ্বের নানা প্রান্তের মানুষের মাঝে জনপ্রিয়। দেশটিতে যেমন রয়েছে উচ্চ ব্যয়ে বিলাসবহুল ভ্রমণের ব্যবস্থা তেমন রয়েছে কম ব্যয়ে ভ্রমণেরও দারুণ বন্দোবস্ত। থাইল্যান্ডে কম খরচে ভ্রমণের জন্য বিখ্যাত একটি স্থান হলো দেশটির পূর্বাঞ্চলের চান্থাবুরি। এখানে ছুটি কাটাতে এলে বাংলাদেশি টাকায় প্রায় চার হাজার টাকার মধ্যেই মানসম্মত হোটেল পাবেন। এ ছোট শহরটি ব্যাংকক থেকে ২৩০ কিলোমিটার দূরে। এ ছাড়া রয়েছে কোহ তাও, কোহ কুড, কোহ মাক ও পুখেট-এর কামালা বিচ।

২. ফিলিপাইন
ফিলিপাইনে ব্যয়বহুল লাক্সারি হোটেলের কোনো কমতি নেই। কিন্তু আপনি যদি কম খরচে ভ্রমণ করতে চান তাহলে তাও পাবেন। এ ক্ষেত্রে আপনি যেতে পারেন দেশটির করন দ্বীপে। সেখানে বাংলাদেশি মুদ্রায় সাত হাজার টাকার নিচেই পাবেন হোটেল। এ ছাড়া রয়েছে নানা দর্শনীয় স্থানে বেড়ানোর সুযোগ। কম খরচে বিলাসবহুল হোটেল পাওয়া যাবে ম্যালপুসকুয়া দ্বীপেও। সেখানে কম খরচেই পাবেন সি ভিউ রুম, যেখান থেকে সাগরের অসাধারণ দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন।

৩. ইন্দোনেশিয়া
ভ্রমণপিপাসুদের জন্য অত্যন্ত আকর্ষণীয় একটি দেশ ইন্দোনেশিয়া। দেশটিতে সাগরের তীরবর্তী বিভিন্ন হোটেলে থাকতে পারবেন প্রতিরাতে প্রায় সাড়ে আট হাজার টাকা খরচ করে। তবে আপনি একটু খোঁজখবর করলেই পেয়ে যাবেন এর অর্ধেক খরচের হোটেল। সে ক্ষেত্রে একটু ভেতরের দিকে থাকতে হবে। এ ছাড়া ভ্রমণের তালিকায় রাখতে পারেন বানউওয়াঙ্গি ও ব্যাংকা। সেখানে রয়েছে সাড়ে তিন হাজার টাকার মধ্যেই ব্রেড অ্যান্ড ব্রেকফাস্ট হোটেল। দেখতে পারবেন সমুদ্রের সৌন্দর্যও। এ ছাড়া আপনি যদি একটু বেশি খরচ করে রাজা অ্যামপাত দ্বীপে যান তাহলে ইন্দোনেশিয়া ভ্রমণের খরচ উসুল হয়েছে, একথা যে কেউ স্বীকার করবেন।

৪. মালয়েশিয়া
মালয়েশিয়াতে ভ্রমণকারীদের যে সবকিছু প্রিমিয়াম রেটে পরিশোধ করতে হবে, এমন কোনো কথা নেই। মালয়েশিয়ায় ব্যয়বহুল প্রিমিয়াম সব পর্যটক স্থানের পাশাপাশি রয়েছে কম খরচে ভ্রমণেরও ব্যবস্থা। দেশটিতে সবচেয়ে জনপ্রিয় তিনটি পর্যটন স্থান হলো টিওম্যান আইল্যান্ড, ল্যাংকাউয়ি ও পেনাং। এর সবগুলোতেই যেমন বিলাসবহুল হোটেলের ব্যবস্থা আছে তেমন কম খরচের হোটেলও আছে। এ ক্ষেত্রে আপনি যদি প্রতিরাতে ছয় হাজার বাংলাদেশি টাকা খরচ করেন তাহলেই মানসম্মত হোটেল পেয়ে যাবেন।

৫. কম্বোডিয়া
কম্বোডিয়ায় এখনও বহু অসাধারণ স্থান রয়েছে, যেখানে খুব একটা পর্যটক যান না। এ দেশটিতে রয়েছে কোহ রং ও কোহ রং স্যামলোয়েম। কম্বোডিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম দ্বীপ কোহ রং। এ দ্বীপটি যেমন দৃষ্টিনন্দন তেমন থাকার খরচও কম। এখানে আপনি বাংলাদেশি টাকায় চার হাজারের নিচেই মানসম্মত হোটেল পাবেন।

৬. মিয়ানমার
বহু বছর ধরে নিষিদ্ধ থাকার পর এবার মিয়ানমার পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় স্থানে পরিণত হতে চলেছে। দেশটিতে রয়েছে অসাধারণ সমুদ্রসৈকত ও বহু বৌদ্ধ ধর্মীয় নিদর্শন। মিয়ানমারের সবচেয়ে সুন্দর সমুদ্রসৈকতের একটি হলো নাগাপলি, নাগাউয়ি সাউং ও চাউংথা। এগুলোর মধ্যে চাউংথায় থাকার খরচ সবচেয়ে কম। এখানে চার হাজার টাকার নিচেই পাবেন থাকার জন্য মানসম্মত হোটেল।

৭. ভিয়েতনাম
ভিয়েতনামে রয়েছে পর্যটকদের জন্য অসাধারণ বহু প্রাকৃতিক দর্শনীয় স্থান। এগুলোর মধ্যে একটি স্থান হলো ডা ন্যাং। এটি দেশের মধ্যাঞ্চলে অবস্থিত। এছাড়া রয়েছে মার্বেল মাউন্টেইন ও হোই অ্যান। সেখানে বাংলাদেশি মুদ্রায় এক হাজার টাকার নিচেই পাওয়া যাবে হোটেল। ভিয়েতনামে ভ্রমণ করতে গেলে সেই তালিকায় রাখতে পারেন ফু কুয়োক। এটি একটি দারুণ দ্বীপ, যেখানে সাড়ে আট হাজার টাকার মধ্যেই পাওয়া যাবে হোটেল।

তথ্যসূত্র: কালের কণ্ঠ ডটকম।




আরো পড়ুন




© All rights reserved © 2019 Business Studio
Theme Developed BY Desig Host BD