1. info@businessstdiobd.top : admin :
শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন




ফেরারি বিক্রি হলো অবিশ্বাস্য রেকর্ড দামে!

একটি গাড়ির দাম কত হতে পারে? গাড়ি কেনাটা এখন অনেকের সাধ্যের মধ্যেই। কিন্তু ক্ল্যাসিক কিছু গাড়ি আছে, যার দাম শুনলে পিলে চমকে যাবে। এমনই একটি গাড়ি সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় মনটেরিতে নিলামে বিক্রি হয়েছে।

নিলাম হাউস আরএম সথেবির বার্ষিক গাড়ি বিক্রির অনুষ্ঠানে একটি গাড়ির দাম উঠেছে ৪০৩ কোটি ৫২ লাখ টাকার (৪ কোটি ৮৪ লাখ ডলার) বেশি। নিলামে বিক্রি হওয়া কোনো গাড়ির ক্ষেত্রে এটি দামের রেকর্ড। গাড়িটির মডেল ১৯৬২ ফেরারি ২৫০ জিটিও।

সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, এর আগে ২০১৪ সালে সর্বোচ্চ দামে বিক্রি হওয়া গাড়িটি ছিল ফেরারি ২৫০ জিটিও বার্লিনেটা। ওই গাড়ির দাম উঠেছিল ৩১৬ কোটি ৮১ লাখ টাকার বেশি (৩ কোটি ৮০ লাখ ডলার)।

২০১৬ সালে ফ্রান্সে আরেকটি গাড়ি বিক্রি হয়েছিল ২৯১ কোটি ৮০ লাখ টাকায়। ওই গাড়ির মডেল ছিল ১৯৫৭ ফেরারি। ১৯৬২ ফেরারি ২৫০ জিটিও গাড়িটিকে সংগ্রহে থাকা গাড়ির মধ্যে ‘হোলি গ্রেইল’ বলা হয়। এটি মাইক্রোসফটের সাবেক নির্বাহী গ্রেগ হুইটম্যানের সংগ্রহে ছিল।

৪০০ কোটি টাকা দামের এ গাড়ির ইতিহাস অবশ্য সমৃদ্ধ। গাড়িটিকে চ্যাম্পিয়ন গাড়ি বলা হয়। ১৯৬২ সালে ইতালিয়ান জিটি চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছিল এটি। এ ছাড়া ১৯৬২ থেকে ১৯৬৫ পর্যন্ত ১৫টি রেস জিতেছে। ফর্মুলা ওয়ান ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নের প্রথম মার্কিন বিজয়ী ফিল হিল এ গাড়ির চালক ছিলেন।

ফেরারি গাড়ির ইতিহাসে সফল রেসিং কার হিসেবে এটি বিখ্যাত। গাড়িটি অনন্য এ কারণে যে এটি ছিল লিমিটেড এডিশন। মাত্র ৩৬টি জিটিও তৈরি হয়েছিল। এখনো সেগুলো চলছে।

গাড়িটি মূল্যবান হওয়ার আরও কারণ আছে। একটি হচ্ছে দৃষ্টিনন্দন গাড়ি হিসেবে ফেরারি মানুষের প্রশংসা কুড়িয়েছে। এ ছাড়া ফেরারির সফল রেসিং কার পরিবারের মধ্যে পড়েছে।

গাড়ি বিশেষজ্ঞ জেক অরব্যাচের ভাষ্য, ২৫০ জিটিওর সুবিধা হচ্ছে এটি অন্য গাড়ির মতোই সোজা। দরজা খুললেন, ভেতরে ঢুকলেন আর গাড়ি চলা শুরু হলো। ৩৬টি গাড়ির মালিক মিলে একটি বিশেষ ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেছেন। তাঁরা পরস্পরকে চেনেন এবং মাঝে মাঝে রোড র‍্যালিতে অংশ নেন।

তথ্যসূত্র: প্রথমআলো ডটকম।




আরো পড়ুন




© All rights reserved © 2019 Business Studio
Theme Developed BY Desig Host BD